ব্যবহারকারীর বায়োমেট্রিক ডেটা বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করে ইনস্টাগ্রাম

ইনস্টাগ্রামের মূল কোম্পানি ফেইসবুকের বিরুদ্ধে ১০ কোটি ব্যবহারকারীর বায়োমেট্রিক তথ্য নেয়ার অভিযোগে ক্লাস অ্যাকশন মামলা হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের রেডউড শহরের প্রাদেশিক আদালতে ক্যালি ওয়ালেন নামের এক নারী এ মামলা দায়ের করেন। মামলার অভিযোগে বলা হয়, ব্যবহারকারীর বায়োমেট্রিক ডেটা সংগ্রহ, সংরক্ষণ ও বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহার করে ইনস্টাগ্রাম। ব্যবহারকারীদের অজান্তেই এটি করা হয়। এ বিষয়ে তাদের অনুমতি নেওয়া হয় না।

মামলায় আরও দাবি করা হয়, মাধ্যমে ইনস্টাগ্রামের ফেইস ট্যাগিং টুল ফেশিয়াল রিকগনিশন প্রযুক্তি ব্যবহার করে মানুষের পরিচয় শনাক্ত করে এবং ফেইস টেম্পলেট তৈরি করে, যা তাদের ডেটা বেইজে জমা হয়।

বিষয়টি ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারের শর্তাবলীতে লেখা আছে। তবে মামলায় বলা হয়, টুলের মাধ্যমে ব্যবহারকারীর ছবিতে থাকা অন্য ব্যক্তিদের ফেইস স্বয়ংক্রিয়ভাবে স্ক্যান করা হয়। যারা ইনস্টাগ্রাম ব্যবহারকারী নন তাদের ক্ষেত্রেও ব্যতিক্রম ঘটে না।

অভিযোগ প্রমাণিত হলে ইনস্টাগ্রামের মূল কোম্পানি ফেইসবুককে প্রত্যেক ব্যবহারকারীর জন্য ১০০০ থেকে ৫০০০ ডলার পর্যন্ত জরিমানা দিতে হতে পারে। সে হিসাবে সর্বমোট তাদের ব্যয় হবে ৫০০ বিলিয়ন থেকে ১ ট্রিলিয়ন ডলার।

তবে ফেইসবুকের মুখপাত্র, এই মামলাকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন। তিনি বলেন, ইনস্টাগ্রাম ফেইস রিকগনিশন প্রযুক্তি ব্যবহার করে না।

প্রযুক্তির পথ ও জয়গানের সব খবর তুলে এনে জীবন সহজ করছে ITSohor। দেশ ও বিদেশের প্রযুক্তির সর্বশেষ সংবাদ সবার আগে জানতে ভিজিট করুনঃ আইটি শহরে

আপনার মতামত, লাইক ও কমেন্টের সঙ্গে থাকুন আমাদের আইটি শহরের ফেসবুক ফ্যান পেজে

76 Views

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

HTML Snippets Powered By : XYZScripts.com