গো-জেক পাঠাওকে দেয়া ১৭ মিলিয়ন ডলার রাইট ‘অফ ঘোষণা’ করেছে

ইন্দোনেশিয়াভিত্তিক ট্রান্সপোর্ট সিস্টেম প্রতিষ্ঠান গো-জেকসহ পাঠাওয়ে বিনিয়োগ করা ১৭ মিলিয়ন ডলার বা ১৪৪ কোটি টাকাকে লোকসান হিসেবে দেখছে।

গো-জেক পাঠাওকে দেয়া ১৭ মিলিয়ন ডলার রাইট ‘অফ ঘোষণা’ করেছে। এর মানে দাঁড়ায় গো-জেক পাঠাওকে এই পরিমাণ অর্থ একটি নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত লোন হিসেবে দিয়েছিলো। যেখানে ওই সময়ের পর এই অর্থ শেয়ার মূল্যায়ন বা রূপান্তর হবে।

কিন্তু পাঠাওকে এখন তারা ‘ডুবতে’ থাকা কোম্পানি হিসেবে মূল্যায়ন করছে যেখানে এই টাকা উঠে আসার কোনো আশা তাদের নেই। কারণ এই পরিমাণ অর্থের শেয়ার দেয়ার অবস্থাও পাঠাওয়ের নেই।

সিঙ্গাপুরভিত্তিক তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক গণমাধ্যম টেকইনএশিয়ার এক বিশেষ প্রতিবেদন এ তথ্য জানানো হয়েছে।

টেকইনএশিয়ার ওই প্রতিবেদনে, গো-জেক এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি।

গো-জেক এখনও পাঠাওয়ের বিনিয়োগকারী কিনা টেকইনএশিয়ার এমন জিজ্ঞাসায় উত্তর দেয়নি গো-জেক এবং পাঠাও সিইও।

স্টার্টআপ বিশেষজ্ঞ ও ভেঞ্চার ক্যাপিটালিস্টরা বলছেন, এটা ‘ convertible debt’ মনে হচ্ছে। যার অর্থ একটি নিদির্ষ্ট সময় পর্যন্ত লোন দেয়া। এতে ‘শেয়ার কেনা’ হয়নি।

‘এটা খুব দু:খজনক যে পাঠাওয়ের ক্ষেত্রে এমনটা হলো। এতো দিনে পাঠাও ইউনিকর্ণ হওয়ার কথা ছিলো কিন্তু তা এখন ১০০ মিলিয়ন ডলারের কোম্পানিতেও দাঁড়ায়নি’ বলছিলেন তারা।

২০১৮ সালে গো-জেক সিঙ্গাপুরের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ওজেক মটর বাংলাদেশের মাধ্যমে পাঠাও-কে ১৩ মিলিয়ন ডলার লোন হিসেবে দেয়। ২০১৯ সালে পাঠাওকে আরও ৪ মিলিয়ন ডলার দেয় তারা। বছর শেষে ১৭ মিলিয়ন ডলারকে তারা ক্ষতি হিসেবে বিবেচনা করতে থাকে।

গত বছর বিনিয়োগের অভাবে তিন শতাধিক কর্মী ছাঁটাই করে পাঠাও।

প্রযুক্তির পথ ও জয়গানের সব খবর তুলে এনে জীবন সহজ করছে ITSohor। দেশ ও বিদেশের প্রযুক্তির সর্বশেষ সংবাদ সবার আগে জানতে ভিজিট করুনঃ আইটি শহরে

আপনার মতামত, লাইক ও কমেন্টের সঙ্গে থাকুন আমাদের আইটি শহরের ফেসবুক ফ্যান পেজে

111 Views

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

HTML Snippets Powered By : XYZScripts.com