এলইডি ল্যাম্পের মাধ্যমে কাজ করে লাইফাই

বার্লিনের ফ্রাউনহফার হাইনরিশ হারৎস ইন্সটিটিউটের গবেষকরা আলো ব্যবহার করে তারহীন তথ্য সরবরাহ ব্যবস্থা নিয়ে কাজ করছেন৷ এই প্রযুক্তি লাইফাই নামে পরিচিত৷ এলইডি ল্যাম্পের মাধ্যমে কাজ করে লাইফাই৷

এলইডি বাতি অত্যন্ত দ্রুত বন্ধ ও চালু করা যায়৷ রিসিভার ডিভাইসে থাকা সেন্সরগুলো সিগন্যাল গ্রহণ করে৷ সিগন্যাল ট্রান্সমিটারের গতিও অনেক৷ লাইফাই অত্যন্ত বিস্তৃত স্পেকট্রাম ব্যবহার করে যা ইতিবাচক ব্যাপার৷ আমাদের সিলিং লাইট থেকে তারহীন প্রযুক্তিতে তথ্যও দ্রুত সরবরাহ করা যায়৷ কিন্তু এটা কি আমাদের দৃষ্টিশক্তির জন্য কোন সমস্যা সৃষ্টি করতে পারে?

ফ্রাউনহফার হাইনরিশ হারৎস ইন্সটিটিউটের আনাগ্নোস্টিস পারাস্কেভোপিওস বলেন, ‘‘প্রশ্ন হচ্ছে এটা কি সারাক্ষণ মিটমিট করে জ্বলে? উত্তর হচ্ছে না, যা এখানে আমরা দেখতে পাচ্ছি৷ এক্ষেত্রে খুব চমৎকার সামঞ্জস্য আনা হয়েছে৷ সেটা এমনভাবে করা হয়েছে যাতে চোখের পক্ষে সনাক্ত করা সম্ভব না হয়৷”

এখানে জ্বলতে থাকা সবুজ আলোগুলো শুধু ডিজাইন উপকরণ হিসেবে কাজ করছে৷ বার্লিনের বিজ্ঞানীরা এই ডিভাইসগুলো সম্প্রতি তৈরি করেছেন৷ সবুজ আলো দেখলে বোঝা যায় যে এগুলো কাজ করছে৷

এই অপটিক্যাল তারহীন ব্যবস্থা কাজ করার ক্ষেত্রে পূর্বশর্ত হচ্ছে তথ্যে প্রেরণ আর গ্রহণ করার যন্ত্রের মধ্যে ভিজ্যুয়াল সংযোগ থাকতে হবে৷

আলোর সূত্র যদি বাধাগ্রস্ত হয় তাহলে সিগন্যাল পাওয়া যাবে না৷ তথ্য সরবরাহ পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যাবে৷

উনহফার হাইনরিশ হারৎস ইন্সটিটিউটের আনাগ্নোস্টিস পারাস্কেভোপিওস বলেন,‘‘অপটিক্যাল ডেটা কানেকশনের একটি সুবিধা হচ্ছে এটাকে সহজেই এক ঘরের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখা যায়৷ এজন্য আমার শুধু জানালার পর্দা নামিয়ে ফেলতে হবে৷ আর তখন এই ব্যবস্থায় সরবরাহ করা সব তথ্য ঘরের মধ্যেই থেকে যাবে৷ রেডিও লিংকের সঙ্গে তুলনা করলে এটা একটা বড় সুবিধা৷ কারণ অন্য ব্যবস্থায় ঘরের বাইরে থাকা ডিভাইসও একই তথ্য গ্রহণ করার সুযোগ থেকে যায়৷”

বিশ্বের কোন দেশে মানুষ কত সহজে ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ পায়, অনলাইন দুনিয়ার স্বাধীনতা কতটা, ২০০৯ সাল থেকে তা নিয়ে প্রতিবেদন তৈরি করে আসছে ফ্রিডম হাউজ নামের একটি সংগঠন৷ তিনটি বিষয়ে ২১ টি সূচকের মাধ্যমে তারা তৈরি করেছে ‘ফ্রিডম অন দ্য নেট ২০১৯’ প্রতিবেদনটি৷ উঠে এসেছে ৬৫ টি দেশের ইন্টারনেট ব্যবহারের স্বাধীনতার চিত্র৷ ২০১৮ সালের জুন থেকে ২০১৯ সালের মে পর্যন্ত সময়ের তথ্য সংগ্রহ ও বিশ্লেষণ করেছে তারা৷

তথ্য সরবরাহের এই ব্যবস্থায় বাইরে থেকে বিঘ্ন ঘটানোও সম্ভব নয়৷ আলোভিত্তিক এই ইন্টারনেট ব্যবস্থা ইতোমধ্যে গাড়ি নির্মাতাদের সঙ্গে একটি পরীক্ষামূলক প্রকল্পের আওতায় পরীক্ষা করা হয়েছে৷ নতুন এই প্রযুক্তির রিসিভার হচ্ছে এই বাক্সটি৷

পাশাপাশি অন্যান্য লাইফাই ডিভাইসগুলোকে এমনভাবে স্থাপন করা হয়েছে যাতে সেগুলোর অন্তত একটি সবসময় রিসিভারের দৃষ্টিসীমার মধ্যে থাকে৷ ফলে রোবটটি সার্বক্ষণিক নড়াচড়ার মধ্যে থাকলেও তথ্য সরবরাহ কোন বিঘ্ন ঘটছে না৷ আর এই প্রকল্পের জন্য এটা এক বড় সাফল্য৷

আনাগ্নোস্টিস বলেন, ‘‘আমার মত হচ্ছে এই প্রযুক্তি প্রথমে একটি শিল্পখাতে প্রয়োগ করা উচিত৷ কেননা সেখানেই এটির সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন রয়েছে৷ এই প্রযুক্তির মাধ্যমে আমরা নির্দিষ্ট কিছু চাহিদা পূরণ করতে পারি, এবং একইসঙ্গে এটি বাণিজ্যিকভাবে ব্যবহারের আরো সুযোগ রয়েছে৷”

পরবর্তীতে আলোর মাধ্যমে তথ্য সরবরাহের এই ব্যবস্থা আমাদের নিত্যদিনের কাজকর্মেও ব্যবহার করা যাবে৷ যেমন, মিউজিয়াম এবং গণপরিবহনে এটা কাজে লাগতে পারে৷ বিশেষ করে এমন পরিবেশে যেখানে একসঙ্গে অনেক মানুষ রয়েছে কিংবা যেখানে সাধারণ তারহীন প্রযুক্তি ব্যবহারে জটিলতা রয়েছে৷ তবে, সেসবের আগে বেশি কিছু সমস্যাও সমাধান করতে হবে৷ গবেষকরা আগামী তিনবছরের মধ্যে এসব সমস্যা সমাধানের আশা করছেন৷ আর তখন নিত্যদিনে ব্যবহার করা যাবে লাইফাই৷ সূত্র: ডয়েচ ভেলে

প্রযুক্তির পথ ও জয়গানের সব খবর তুলে এনে জীবন সহজ করছে ITSohor। দেশ ও বিদেশের প্রযুক্তির সর্বশেষ সংবাদ সবার আগে জানতে ভিজিট করুনঃ আইটি শহরে

আপনার মতামত, লাইক ও কমেন্টের সঙ্গে থাকুন আমাদের আইটি শহরের ফেসবুক ফ্যান পেজে

132 Views

2 thoughts on “এলইডি ল্যাম্পের মাধ্যমে কাজ করে লাইফাই

  1. 414428 101897As far as me being a member here, I wasnt aware that I was a member for any days, in fact. When the article was published I received a notification, so that I could participate in the discussion with the post, That would explain me stumbuling upon this post. But were definitely all members in the world of suggestions. 97142

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

HTML Snippets Powered By : XYZScripts.com